পর্যটন

সৈকতে অবৈধ স্থাপনা, চট্টগ্রামের টি কে গ্রুপকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা       

কথা প্রতিবেদক
 
কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান অব্যহত রয়েছে। মেরিন ড্রাইভের প্যাঁচারদীপের পর এবার ইনানীর ইসি ভুক্ত এলাকার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এসময় ২০ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। 
 
বুধবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ অভিযান চালায় পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার এনফোর্সমেন্ট টীম।       
পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার অঞ্চলের সহকারি পরিচালক সাইফুল আশ্রাব জানান, উখিয়ার ইনানী সৈকত সংলগ্ন ইসি এলাকায় পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড় পত্র ব্যাতিত একতলা স্থাপনা এবং দেয়াল নির্মাণ করে চট্টগ্রামস্থ খাতুনগঞ্জের কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান টি কে গ্রুপ। এটি অভিযোগ পেয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম অঞ্চল ও কক্সবাজার জেলা কার্যালয়ের এনফোর্সমেন্ট টিম যৌথভাবে অভিযান চালায়। অভিযানে ইসিএ এলাকায় অনুমতি বিহীন অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করায় চট্টগ্রামস্থ খাতুনগঞ্জের কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান টি কে গ্রুপকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 
 
তিনি আরো জানান, আগামী একমাসের মধ্যে ইসি এলাকার সকল স্থাপনা সরিয়ে ফেলার নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে। অন্যতায় অবৈধ স্থাপনাকারিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 
অপরদিকে, গত ১১ জানুয়ারি  কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়কের পেঁচারদ্বীপ সংলগ্ন এলাকায় অবৈধভাবে দখলকৃত সরকারি ২০ একর খাস জমি পুনরুদ্ধার করে জেলা প্রশাসন। শুক্রবার সকাল থেকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জেলা প্রশাসন এসব জমি উদ্ধারের পাশাপাশি জব্দ করেছে কাঠ, টিনসহ বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী। 
 
সেই সাথে দখলদারদের বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদপ্তর নিয়মিত মামলাও করেছে। মোবাইল কোর্টে নেতৃত্বদেন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মো. সেলিম শেখ। 
 
সেলিম শেখ জানান, জাদুঘর সংলগ্ন পেঁচার দ্বীপ, মেরিন ড্রাইভের পশ্চিম পাশে প্রায় ২০ একর সরকারি খাস জমি মারমেইড নামে একটি প্রতিষ্ঠান অবৈধভাবে দখলে নিয়ে সেখানে গড়ে তোলার চেষ্টা করছিল বিভিন্ন অবকাঠামো। সরকারি খাস জমি অবৈধ দখল উচ্ছেদে মোবাইল কোর্ট চালানো হয়। জমি পুনদখলের পাশাপাশি কাঠ, টিনসহ বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী জব্দ করা হয়। অভিযানকালে পরিবেশ অধিদপ্তর, আনসার, বনবিভাগসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close