কক্সবাজার কথা

যুবলীগের নতুন চেয়ারম্যান পরশ ও সা. সম্পাদক নিখিল

ডেস্ক নিউজ:

কালই চূড়ান্ত হয়েছিল যুবলীগ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন শেখ ফজলে শামস পরশ। এখন যুবলীগের কংগ্রেস চলছে। জানা গেছে যে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন মাইনুল হাসান খান নিখিল। তারা আগামী ৩ বছরের জন্য যুবলীগকে সামনে এগিয়ে যাবেন।
ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন নিখিল। তৃণমূল থেকে উঠে আসা এ যুবনেতা বৃহত্তর লালবাগ থানা ছাত্রলীগের সক্রিয় সদস্য হিসেবে রাজনীতিতে জড়ান।

পরে মিরপুরে ওয়ার্ড যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক থেকে মহানগর ও কেন্দ্রীয় পর্যায়ে নেতৃত্ব দেন। ধার্মিক ও পরোপকারী ব্যক্তি হিসেবে তার ক্লিন ইমেজ রয়েছে।।
উল্লেখ্য যে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের মধ্য দিয়ে যুবলীগের সপ্তম কংগ্রেসের আনুষ্ঠানিকতার পর্ব শেষ হবে। দ্বিতীয় অধিবেশন হবে ইঞ্জিনিয়ারস ইনস্টিটিউটে। সেখানে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের নাম চূড়ান্তভাবে ঘোষণা করা হবে।
যুবলীগের দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে যে কোন ভোট হচ্ছে না। শুধুমাত্র সমঝোতার ভিত্তিতে পরশ সভাপতি এবং নিখিল সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন।

কংগ্রেসে গিয়ে গুরুতর অসুস্থ যুবলীগ নেতা ফারুক
বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং ৭ম কংগ্রেসের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির আহ্বায়ক ফারুক হোসেন গুরুতর অসূস্থ্য হয়ে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি আছেন। কংগ্রেসে উপস্থিত থাকা অবস্থায় হঠাৎ করে বুকে ব্যাথা উঠলে তাকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে তাকে।

যুবলীগের কংগ্রেস: মঞ্চে নেই সাবেক চেয়ারম্যানরা
বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সপ্তম কংগ্রেসের মঞ্চে সাবেক নেতৃবৃন্দকে রাখা হয়নি। সাবেক চেয়ারম্যান আমির হোসেন আমু শেখ ফজলুল করিম সেলিম জাহাঙ্গীর কবির নানক- এদের কেউই মঞ্চে আসেননি। প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মঞ্চে আছেন শুধু বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক সদস্যসচিব এবং সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য যে ক্যাসিনো বাণিজ্য টেন্ডার বাণিজ্যসহ নানা অভিযোগের মধ্যেই বাংলাদেশ আআওয়ামী যুবলীগের এই কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই কংগ্রেসের আগেই ওমর ফারুক চৌধুরীকে চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এই বিতর্কে শুধু সাবেক চেয়ারম্যান না অতীতের নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধেও নানা অভিযোগ উঠেছে। এই প্রেক্ষাপটে যিবলীগকে নিষ্কলুষ করতে এবং বিতর্কমুক্ত কংগ্রেস করতেই অতীতের কোনো কেন্দ্রীয় নেতাকে মঞ্চে ডাকা হয়নি বলেই যুবলীগ সূত্রে জানা গেছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close