কক্সবাজার কথা

“জেলা প্রশাসক মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি

লেখকঃ হাকিমুন নেছা বাপ্পি:
মহামারি করোনা ভাইরাসে সারাবিশ্বে একটি আতংকিত দিন যাপন চলছে।সব দেশে এখন কঠোর নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।সেই সাথে আমাদের কক্সবাজারেও।এই ভাইরাসের জন্য বাসা থেকে বের হওয়া নিষিদ্ধ। দিনমজুর থেকে শুরু করে চাকুরীজীবি সবাই বাসায় বন্দী। আতংকে দিন যাপন করছে সবাই।অনেক কর্মস্থল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে একটি জিনিস বিবেচনা না করলে নয়।অধিকাংশ মানুষ কাজের কারণে কক্সবাজার ভাড়া বাসা নিয়ে বসবাস করছে।বেশির ভাগ লোক এনজিও আর হোটেলে কর্মরত। হঠাৎ এই মহামারির কারণে এনজিও ও হোটেলগুলো বন্ধ ঘোষণা করল। কি করে চলবে এতগুলো লোক?বাসা থেকে বের না হয়ে বন্দী থাকা মানে আয় রোজগার বন্ধ। কি করে সংসার চলছে বা চলবে?খাবে নাকি বাসা ভাড়া দিবে??সরকারি নির্দেশে সবাইকে বাসা থেকে বের না হওয়ার জন্য বারবার মাইকিং থেকে শুরু বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে আর বিভিন্ন ব্রিফিং জানানো হচ্ছে। কিন্তু কেউ কি একবার চিন্তা করলেন বাসা বন্দী হয়ে থাকলে লোকগুলো খাবে কি? কানাডা সরকার যদি সব নাগরিকের দায়িত্ব নিতে পারেন খাবার থেকে শুরু করে বাসা ভাড়া সহ তাহলে আমরা কেন পারবো না।খাবার যাই হোক কিন্তু মাস শেষে বাড়িয়ালা ঠিকই বাড়ি ভাড়ার জন্য চাপ দিবে।কিন্তু এই বাসা বন্দী অসহায় মানুষগুলো কিভাবে ভাড়া দিবে কেউ কি একবার ও ভেবে দেখেছেন??আমি কক্সবাজার জেলা প্রশাসক আর বাড়িয়ালাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।আপনারা এই মহামারি অবস্থায় অন্তত ভাড়াটিয়াদের বাসা ভাড়া নিয়ে একটু বিবেচনা করলে অন্তত ভাড়াটিয়া অসহায় লোকগুলোর কিছুটা হলেও উপকৃত হবে।আর যারা ভাড়াটিয়া আছেন আপনারাও আপনাদের সমস্যাগুলো শুনার বা বুজার কেউ নেই কিন্তু আমি আশা করছি আমাদের জেলা প্রশাসক মহোদয় আপনাদের, আমাদের এই দুঃসময়ে হতাশ করবেন না। আশা করি আমাদের,আপনাদের সবাইকে যতটুকু পারেন সহযোগিতা করবেন।

লেখকঃ হাকিমুন নেছা বাপ্পি

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close