বিনোদন

উপহাসের শিকার নারী

টাইমস অব ইন্ডিয়া

হ্যাশট্যাগ মি টু আন্দোলন প্রসঙ্গে এক মন্তব্য করে উপহাসের শিকার হয়েছেন বলিউড তারকা রানী মুখার্জি। অনলাইনে তাঁর মন্তব্যের নিন্দা, এমনকি গালমন্দও করছেন অনেক ভারতীয় নাগরিক। মন্তব্যের জের ধরে নতুন প্রজন্মের তারকাদের সঙ্গে তাঁর তুলনা করে অনেকে বলেছেন, এখনকার তারকারা নারী অধিকারের ব্যাপারে অনেক বেশি সচেতন।

ভারতে হ্যাশট্যাগ মি টু আন্দোলন শুরু হওয়ার পর বলিউডের অনেক তারকাই মুখ খুলেছেন। ফাঁস করেছেন যৌন হেনস্তাকারী অনেক গুরুত্বপূর্ণ পুরুষের নাম। একইভাবে এ আন্দোলনে মুখ খুলেছেন দীপিকা পাড়ুকোন, আলিয়া ভাট, আনুশকা শর্মা ও রানী মুখার্জি। তবে বিভক্ত হয়ে যায় এঁদের মন্তব্য। দীপিকা, আনুশকা ও আলিয়ারা যখন এ আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন, রানী মুখার্জি তখন অদ্ভুত এক মন্তব্য করে ফেঁসে যান।

রানী মুখার্জি বলেন, ‘নিজেকে রক্ষা করতে মেয়েদের বরং মার্শাল আর্ট শেখা উচিত।’

রানী মুখার্জি

রানী মুখার্জিরানীর এই মন্তব্য মেনে নেননি অনেকেই। এ মন্তব্যের কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উপহাসের শিকার হতে হয়েছে রানীকে। একটি টুইটার আইডি থেকে মন্তব্য করা হয়, ‘হ্যাশট্যাগ মি টু নিয়ে রানী মুখার্জি যা বলেছেন, সেটা কোনোভাবেই এ আন্দোলনের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ নয়। নামী একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের মালিক হয়েও এই নারী যদি বলেন, মেয়েদের সাবধানে চলতে হবে! আমার সঙ্গে মজা করলেন!’

টুইটারে দিশতি নামের একটি আইডি থেকে বলা হয়েছে, ‘হ্যাশট্যাগ মি টু নিয়ে রানীর বক্তব্য খুবই আপত্তিকর। বলুন দেখি, চার মাসের একটি শিশুকন্যা কীভাবে ধর্ষককে লাথি মারবে?’

রানী মুখার্জি

রানী মুখার্জিএমবিএ লাড়কি নামের একটি আইডি থেকে লেখা হয়েছে, ‘হ্যাশট্যাগ মি টু নিয়ে মন্তব্য করার জন্য রানীর মুখে… (প্রকাশ অযোগ্য)। একজন মায়ের মেয়ে হয়ে সে পুরুষকে ভদ্র হতে না বলে নারীকে মার্শাল আর্ট শিখতে বলে!’

মুহাম্মদ আলী নামের একটি আইডি থেকে বলা হয়েছে, ‘হ্যাশট্যাগ মি টু নিয়ে রানীর কথা শুনলাম, দীপিকা আর আনুশকার কথাও শুনলাম। দুটি প্রজন্মের মধ্যে পার্থক্যটা পরিষ্কার বোঝা যায়।’

এবার রানী মুখার্জির কাজের খবর দেওয়া যাক। অনেক দিন বিরতির পর আবার চলচ্চিত্রে ফিরছেন তিনি। শিগগির ‘মর্দানি টু’ ছবিতে পুলিশ অফিসার শিবানী শিবাজি রায়ের চরিত্রে দেখা যাবে তাঁকে। ২০১৪ সালে মুক্তি পাওয়া ‘মর্দানি’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। ‘মর্দানি টু’ প্রযোজনা করছেন রানীর স্বামী যশরাজ ফিল্মসের প্রধান আদিত্য চোপড়া। ছবিটি পরিচালনা করবেন নবাগত নির্মাতা গোপী পুথ্রম।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

Close
Close
Close